হোম পেজ

সিরাতুল মুস্তাকিমই পাথেয় হোক

‘প্রশংসা জগৎসমূহের প্রতিপালক, আল্লাহরই প্রাপ্য, যিনি দয়াময়, পরম দয়ালু, কর্মফল দিবসের মালিক। আমরা শুধু তোমারই ইবাদত করি, শুধু তোমারই সাহায্য প্রার্থনা করি। আমাদিগকে সরল পথ দেখাও, তাঁদের পথ, যাঁদেরকে তুমি অনুগ্রহ দান করেছ, যাদের প্রতি অভিসম্পাত দেওয়া হয়েছে এবং যারা পথভ্রষ্ট নয় তাদের পথে নয়।’- আল কুরআন-সুরা ফাতেহা, আয়াত ১-৭। শাহ্ শেখ মজলিশ ফুয়াদ ॥ ধর্মের নামে যারা রাজনীতি করে ক্ষমতায় যেতে চায়, সাম্রাজ্যবাদ আর রাজা-বাদশাহদের মদদপুষ্ট হয়ে ব্যবসা-বাণিজ্য করে ব্যক্তিগতভাবে বিপুল আর্থিক সম্পদের মালিক হয়ে শাসক-শোষক গোষ্ঠীর স্বার্থ উদ্ধারে লিপ্ত থাকেন তারা ধর্মজীবি। ধর্মকে তারা জীবন নির্বাহের হাতিয়ার এবং উপায় হিসেবে ব্যবহার করে। ব্যক্তিজীবনে তারা ধর্মের অনুশাসন কতটুকু মেনে চলেন তা সচেতন মানুষেরা যথার্থভাবেই অনুধাবন বা উপলব্ধি করতে পারেন। মানুষের ভালোমন্দ, পাপ-পূণ্যের বিচারের ভার একমাত্র আল্লাহ তায়ালার যা পবিত্র কুরআনে বহুভাবে বহুবার বলা হয়েছে। কিন্তু এ বিষয়ে তাদেরকে কখনই কোনো উচ্চ-বাচ্চ করতে দেখা যায় না। ধর্মজীবীরা বিশেষ করে শান্তির [বিস্তারিত...]

বাংলার জল-জমিনে খেয়ে কোথায় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ?

নজরুল ইশতিয়াক ॥ মুখটা আপনার, চোখটা আপনার, জিহবাও আপনারই। তাহলে এই যে চোখ, মুখ, কান, জিহবা আপনার থাকার পরও সেগুলো দিয়ে কি দেখছেন, কি করছেন, কি বলছেন, কোন কাজে ব্যবহার করছেন, সেটা জানাও আপনার দায়িত্ব। আপনার মুখ দিয়ে কি আপনার কথা বের হচ্ছে, নাকি অন্যের কথায় শ্লোগান ধরছেন, অন্যের শেখানো বুলি আওড়াচ্ছেন? আপনি আমি কি অন্য কারো পরামর্শ অনুযায়ী সব করছি ? কোন বাছবিচার না করেই? পূর্ব ধারণা তৈরী করে ফেলছি সম্পর্ক কিংবা বহুবিধ পরিচয়ের ক্ষেত্রে? ধর্ম চিন্তা, জীবন চিন্তার সবটুকু কি আরোপিত, প্রচলিত কথায়, বলায় গড়ে উঠছে? এগুলো ভেবে দেখার উপরই নির্ভর করে ব্যক্তির সচেতনতা- বোধ- ঈমান। ঈমান হলো ইপসিত মান নির্ধারক। কোথায় আপনার আমার জীবন বোধ চিন্তা। এসবই সবার আগে অন্বেষণ করতে হয়। এটিই হলো জীবন উপলব্ধির শিক্ষা,  এভাবেই দীক্ষায় রূপান্তরিত হয় বোধ। সত্যিকার দেখার দৃষ্টি ভঙ্গি গড়ে উঠে। দেহ আছে বলে জীবন আছে। দেহ [বিস্তারিত...]

ভূমি রাজনীতির স্বার্থে কুটনীতি!

সৈয়দ এ ফয়সাল ॥ সম্প্রতি জাতিসংঘে রোহিংগা ইস্যুতে ভোটাভুটি হয় যেখানে চীন না ভোট দেয় আর ভারত ভোট দানে বিরত থাকে। কেন রোহিংগা ইস্যুতে চীন ভারত বাংলাদেশকে সাপোর্ট দিচ্ছেনা যেখানে ভারত এবং চীন উভয় দেশকেই বাংলাদেশের বন্ধুদেশ মনে করা হয়! এর কারণ ইনভেস্টিগেট করলে ভূ-রাজনৈতিক যোগাযোগ ব্যবস্থার ব্যাপার বেড়িয়ে আসবে। এখানে চীনের মানচিত্র ওয়ালা চিত্রটি খেয়াল করলেই চীন কেন বারবার মিয়ানমারকে সাপোর্ট দিচ্ছে তার আসল কারণ জানতে পারবেন। চিত্রটি খেয়াল করলে দেখা যায় যে চীনের ভুমি সংলগ্ন যে সাগর অবস্থিত তার নাম দক্ষিণ চীন সাগর। সেখান থেকে ভারত মহাসাগরে আসতে হলে নীল রং চিহ্নিত রাস্তা ধরে চীনকে আসতে হবে এবং আসার সময় মালয়েশিয়া ইন্দোনেশিয়ার মাঝে অবস্থিত সরু মালাক্কা প্রণালী অতিক্রম করতে হবে। একটা বিষয় জানা দরকার দক্ষিণ চীন সাগরের তীরে অবস্থিত জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া ফিলিপাইন, ভিয়েতনাম, মালয়শিয়া, ইন্দোনেশিয়া  প্রত্যেকেই আমেরিকার মিত্র। অপরদিকে কোন কারণে যদি চীনের সাথে আমেরিকার [বিস্তারিত...]

স্মৃতির চয়ন

শেখ বরকত উল্লাহ রানা ॥  জীবন বহু ধারায় প্রবাহিত। ব্যক্তির ইচ্ছা, কর্ম ও একনিষ্ঠতা যে ধারা বা ধারাসমূহে উপনিত সেদিকেই ধাবিত হয়। এ জগতে যারা প্রকৃত মানুষ হওয়া এবং এরও সফলতম পর্যায় সত্যরূপ পাথেয় করে, মানব ও জগতকল্যাণের কঠিন সাধনায় ব্রতী হয়ে, সত্যমানুষ হয়ে নিজ জ্যোতিতে আলোকিত করেন সবাইকে, তাঁরাই পূজনীয় ও আরাধ্য। আমার চরম সৌভাগ্য হয়েছে এরূপ দুইজন সত্যমানুষের সন্নিধ্যে এসে- তাঁদের সাথে চিরস্মরণীয় কিছু মুহুর্ত অতিবাহিত করার। যার কিছু আজ এখানে তুলে ধরার চেষ্টা করছি। সত্যমানুষ সূফী সাধক আনোয়ারুল হক এমন এক নাম, এমন এক রূপ যাতে মোহিত তাঁর লাখো অনুসারী, ভক্ত ও আশেকান। সেই রূপের ছটা, আপন করে নেয়া হৃদয়স্পর্শী ডাক, ধনী-গরিব নির্বিশেষে রাজকীয় আপ্যায়ন আর নিজের বিশাল সম্পদ পায়ে ঠেলে দিয়ে সাধনার পথে জীবন উৎসর্গ করা সবই এক আশ্চর্য দিব্য শক্তির মানবীয় প্রকাশ। দরবারে যেই আসত তাকেই তিনি পরম স্নেহে কাছে বসিয়ে আপ্যায়ন [বিস্তারিত...]

অনুভূতি-উপলদ্ধি যে করে লালন সোজা পথে হয় তার চলন

পর্ব:২ সাইমা, মাস্কাট (ওমান) থেকে ॥ আজকাল মানুষ এসব কথা শুনতে রাজী নয়। যেখানে ফিট-ফাট ওখানে দৌড়া-দৌড়ি করে। স্মরণ রাখা অবশ্যই প্রয়োজন , “যার কথায় মানুষের দুরারোগ্য ব্যাধি দুর হয় না -বুঝতে হবে তার উপলদ্ধি জ্ঞান নাই”। যার উপলদ্ধি নাই - সে অন্ধ। ঐ ব্যক্তির খপ্পড় থেকে নিজকে নিরাপদ রাখতে হবে।  আজকাল সমাজে আদমদের শেষ নাই। প্রচুর লোকে আদম সেজেছে। বর্ণিত আছে - “দুই কোটি মানুষের মধ্যে একজন আদম হয় অথবা একজনও  হয় না”। ইহা একজন সাধকের বাণী।  এই কারণে, আমার পিতা আমাকে সর্বদাই বলতেন “আমার জন্য আমার আল্লাহই যথেষ্ট” দিল্লী - লাহোর দৌড়াদৌড়ি করার প্রয়োজন নাই। এক জায়গায় স্থির থাকা আবশ্যক। আমার পিতা-আমার ইশ্বর, ইহাই আমার দৃঢ় পরিচয়। অন্য পরিচয়ের প্রয়োজন নাই। পবিত্র গ্রন্থে বর্ণিত  আছে, কেয়ামতের মাঠে আল্লাহ মানুষ-কে নিজ দল নেতাসহ উপস্থিত করবেন। আমার পিতা আমার দলনেতা। অন্য কারো সাথে যাবো না। পিতার নিকট আমি [বিস্তারিত...]

নিজের কথা – ৪৫

শাহ্ মো. লিয়াকত আলী ॥ সূফী সাধক শেখ আব্দুল হানিফ বলেন ,  " সবার উপর সত্যমানুষ, তাহার উপরে নাই। " এ সত্যমানুষ নিয়ে তিনি আরও বলেন, " সত্যমানুষ হউন, দেশ ও জাতির কল্যাণ হবেই হবে।" আবার মানুষ সম্পর্কে সূফী সাধক আনোয়ারুল হক বলেন, " মানুষ যদি হতে চাও মনুষ্যত্বকে জাগ্রত কর।"   সাধকগণের এসকল বাণীর আলোকে বলা যায়, মনুষ্যত্বের জাগরণ ঘটানো ব্যতীত কেউ প্রকৃতপক্ষে মানুষ হতে পারে না । এখানে মনুষ্যত্ব বলতে মানুষের সত্ত্বা বা মানবসত্বাকে বুঝায়।  কী এই মানবসত্ত্বা যার জাগরণ ব্যতীত  প্রকৃতপক্ষে কেউই মানবসত্ত্বাধীকারী হতে পারে না। আর মনবসত্ত্বাধীকারী না হলে  সত্যমানুষ দূরের কথা কেবল  আকৃতিগত কোন মানুষকেই প্রকৃত অর্থে মানুষ বলা যায় না। আকৃতিগত মানুষ বলতে কেবলই গুণাবলীহীন তথা কান্ডজ্ঞানহীন দেহরূপী মানুষকে বলা হয়। আর কান্ডজ্ঞানহীন দেহরূপী মানুষ দেশ ও জাতির কোন  কল্যাণ সাধন করতে পারে না। সত্য শব্দটি এমন এক সত্ত্বাকে বুঝায় যে সত্ত্বার আছে সৎ আত্মা। তাহলে স্বভাবতই [বিস্তারিত...]

সুপ্রভাত বাংলাদেশ মিরসরাই ইকোনমিক জোন সফলতার পথে

সংলাপ ॥ কয়েক বছর আগের  কথা। দেশের একটি পত্রিকায় একটি নিউজ ছেপেছিল। সেখানে তুলনা করা হয়েছিল বাংলাদেশ কেন ভারতের মত শিল্পে শক্তিশালী হতে পারছে না। উদাহরণ হিসাবে বাংলাদেশে বেজা অথবা বেপজা (আমার সঠিক মনে নেই) একটি দল ভারত ভ্রমণে যায়। সেখানে তারা গুজরাটের একটি অর্থনৈতিক জোন পরিদর্শন শেষে আক্ষেপের সাথে বলে, ভারতের এই অর্থনৈতিক জোন এমনভাবে করা হয়েছে যে একটি শিল্প প্রতিষ্ঠার জন্য যাবতীয় যত সুবিধা দরকার তার সব কিছুই সেখানে আছে। রেডি প্রকল্প। প্লট রেডি করা। বিদ্যুৎ সংযোগ, গ্যাস ও পানির সংযোগ রয়েছে প্রতিটা প্লটে। সেই সাথে রয়েছে প্রশস্ত রাস্তা। নিকটের বন্দরগুলিও প্রস্তুত। কেউ শিল্প স্থাপন করতে চাইলে জমি ইজারা নিয়েই কাজ শুরু করতে পারে। কোন জটিলতা নেই।  আক্ষেপের সুরে বলা হয়েছিল বাংলাদেশে কোন অর্থনৈতিক জোন নাই যেখানে পরিদর্শন করেই এসব সুবিধা আমরা দিতে পারব। একজন বিদেশি যখন বিনিয়োগ করবেন তারা ভারতের প্লট দেখলেই চোখ বুজে সিদ্ধান্ত [বিস্তারিত...]

জো বাইডেনকে বিজয়ী ঘোষণা: ক্ষমতা হস্তান্তরে রাজি ট্রাম্প

জো বাইডেনকে বিজয়ী ঘোষণা: ক্ষমতা হস্তান্তরে রাজি ট্রাম্প সংলাপ ॥ আমেরিকায় গত ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিজয়ী ঘোষণা করেছে দেশটির ক্ষমতা হস্তান্তরের বিষয়টি দেখভাল করার দায়িত্বে থাকা ফেডারেল এজেন্সি- জেনারেল সার্ভিস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন বা জিএসএ। সংস্থাটি সম্প্রতি এক চিঠিতে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ঘোষণা দিয়ে বলেছে, এটি এখন ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়া শুরু করতে প্রস্তুত রয়েছে। সম্প্রতি মার্কিন নিউজ চ্যানেল সিএনএন প্রথম এ খবর প্রচার করে যে, তাদের হাতে জিএসএ’র পক্ষ থেকে ইস্যু করা এমন একটি চিঠির কপি রয়েছে যাতে বাইডেনের টিমের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়া শুরু করতে নিজের প্রস্তুতি ঘোষণা করেছে ওই রাষ্ট্রীয় সংস্থা।   ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এক টুইটার বার্তায় লিখেছেন, জিএসএ’র মহাপরিচালক এমিলি মরফিকে যাতে আর কোনো চাপের মুখে পড়তে না হয় সেজন্য তিনি তাকে প্রটোকল অনুযায়ী ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়া শুরু করতে বলেছেন। এর মাধ্যমে সাম্প্রতিক প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর নির্বাচিত প্রেসিডেন্টের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়া শুরু করার ক্ষেত্রে ট্রাম্প যে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে রেখেছিলেন [বিস্তারিত...]

তুর্কি জাহাজ তল্লাশি: ইইউ, জার্মানি,ইতালির রাষ্ট্রদূতদের তলব

তুর্কি জাহাজ তল্লাশি: ইইউ, জার্মানি,ইতালির রাষ্ট্রদূতদের তলব সংলাপ ॥ পূর্ব ভূমধ্যসাগরে লিবিয়া-অভিমুখী তুরস্কের একটি বাণিজ্যিক জাহাজে তল্লাশি করার প্রতিবাদ জানাতে আঙ্কারায় নিযুক্ত ইউরোপীয় ইউনিয়ন বা ইইউ, জার্মানি ও ইতালির রাষ্ট্রদূতদের তলব করেছে তুর্কি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তুরস্ক সম্প্রতি প্রথমে অভিযোগ করে, জার্মান নৌবাহিনীর সদস্যরা তুরস্কের বাণিজ্যিক জাহাজ ‘রোজেলিন’-এ অবৈধভাবে অনুপ্রবেশ করে এটিতে তল্লাশি চালিয়েছে। এর কয়েক ঘণ্টা পর ওই তিন রাষ্ট্রদূতকে তলব করা হয়। তুর্কি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, সম্প্রতি গ্রিসের পেলোপোনিস উপত্যকার কাছে দেশটির জাহাজে যে তল্লাশি চালানো হয়েছে তা আন্তর্জাতিক আইনের সম্পূর্ণ লঙ্ঘন; কারণ আন্তর্জাতিক পানিসীমায় এ ধরনের তল্লাশি চালানোর কোনো অধিকার কারো নেই। মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হামিদ আকসাভি অভিযোগ করেছেন, জার্মান নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ ‘হামবুর্গ’ থেকে দেশটির নৌসেনারা রোজেলিনে অনুপ্রবেশ করে এবং এটির ক্যাপ্টেনসহ সব নাবিককে অস্ত্রের মুখে বন্দি করে রাখে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তুরস্ক সরকারের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের কাছে অভিযোগ জানানো হলে তল্লাশি অভিযান অসমাপ্ত রেখেই জার্মান নৌসেনারা তুর্কি বাণিজ্যিক জাহাজ ত্যাগ করে চলে যায়। জার্মানির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় [বিস্তারিত...]

অতি গোপনে সৌদি সফরে ইসরাইলী প্রধানমন্ত্রী

অতি গোপনে সৌদি সফরে ইসরাইলী প্রধানমন্ত্রী সংলাপ ॥ অতি গোপনে সৌদি সফর সারলেন ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। সফরে সৌদি যুবরাজ (ক্রাউন প্রিন্স) মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে বৈঠক করেছেন তিনি।  সৌদি সফররত যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সঙ্গেও সাক্ষাৎ করেন তিনি। সফরে তার সঙ্গে এসব বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ইসরাইলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের প্রধান ইয়োসি কোহেন। বৈঠকগুলো রোববার লোহিত সাগর উপকূলে সোদির নির্মাণাধীন অত্যাধুনিক শহর নিওমে অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু এক ইসরাইলি মন্ত্রীর বরাত দিয়ে সোমবার সকালে প্রথম এর কথা প্রকাশ করে দেশটির কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে। এই বৈঠকে কী নিয়ে আলোচনা হয়েছে তা প্রকাশ করা হয়নি। তবে তেলআবিবের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণের বিষয়টিই গুরুত্ব পেয়েছে বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা। এর একদিন আগেই সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহান আল-সৌদ বলেন, যদি তার দেশের একটিমাত্র পূর্বশর্ত পূরণ হয় তবে ইহুদিবাদী ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণ প্রক্রিয়াকে সম্পূর্ণভাবে সমর্থন করবে রিয়াদ। খবর আলজাজিরা ও এএফপির। যুক্তরাষ্ট্রের কূটনৈতিক চাপে গত দুই মাসে ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার চুক্তি সই করেছে [বিস্তারিত...]

সৌদির আরামকো তেল স্থাপনায় আবারও হুথি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

সৌদির আরামকো তেল স্থাপনায় আবারও হুথি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা সংলাপ ॥ ইয়েমেনে হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলন সমর্থিত সেনারা সৌদি আরবের বন্দরনগরী জেদ্দার আরামকো তেল স্থাপনায় আবার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে। যেখানে ইয়েমেনের যোদ্ধারা ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিযয়েছে সেটি হচ্ছে আরামকো কোম্পানির তেল ডিস্ট্রিবিউশন স্টেশন।ইয়েমেনি সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র বিগ্রেডিয়ার জেনারেল ইয়াহিয়া সারিযয়ি সম্প্রতি জানান, কুদস-২ ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে নিখুঁতভাবে ওই ডিসট্রিবিউশন স্টেশনে হামলা চালানো হয়েছে। তিনি বলেন, হামলার পর অ্যাম্বুলেন্স এবং ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি ওই স্থানে ছুটে যায়। জেনারেল সারিযয়ি জানান, সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে ক্ষেপণাস্ত্রটি তৈরি করা হয়েছে এবং সম্প্রতি সৌদি আরবের গভীরে হামলা চালিয়ে এর পরীক্ষা সম্পন্ন হয়। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো এ ক্ষেপণাস্ত্রের কথা ঘোষণা করা হয় নি। ইয়েমেনের ওপর সৌদি নেতৃত্বাধীন কথিত আরব জোটের অব্যাহত আগ্রাসন এবং অবরোধের জবাবে এ হামলা চালানো হয়েছে বলে জেনারেল সারিয়ি মন্তব্য করেন। [বিস্তারিত...]

দুর্নীতিতে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারিদের সংশ্লিষ্টতা অশনিসংকেত !

ডঃ সরফরাজ ॥  দেশব্যাপী সরকারের দুর্নীতিবিরোধী অভিযানের ফলস্বরূপ ইতোমধ্যে জনপ্রতিনিধি, ব্যবসায়ী, রাজনীতিক, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারিসহ অনেকের নাম ও চরিত্র দেশবাসীর সামনে উন্মোচিত হয়ে পড়েছে। সাধারণ মানুষ বিষয়টিকে শুদ্ধি অভিযানের অংশ মনে করলেও বিজ্ঞ মহল ভীষণ উদ্বিগ্ন। বিশেষ করে শীর্ষ দুর্নীতিবাজদের তালিকায় প্রজাতন্ত্রের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের আধিক্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিস্ট সবাইকে ভাবিয়ে তুলেছে। অতি সম্প্রতি দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ও বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এমনি এক ভয়াবহ তথ্য জাতির সামনে তুলে ধরা হয়েছে। প্রকাশিত প্রতিবেদন মতে, ২০১৬ সাল হতে এ পর্যন্ত দুর্নীতির মামলায় যে ৭৯৯ জন আটক হয়েছেন তাদের মধ্যে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারি রয়েছেন ৩৯০ জন। যা জাতির জন্য এক অশনী সংকেত বলে চিন্তাশীল মহল আশঙ্কা করছেন। সরকারের বলিষ্ঠতায় ও কার্যকরি কিছু উদ্যোগের বদৌলতে দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়নের কালিমা লেপনে সক্ষম হলেও স্বার্থান্বেষী গুটি কয়েক কর্মকর্তা-কর্মচারির নৈতিক স্খলন দেশের ভাবমূর্তিকে শুধু ম্লানই করছে না সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারিদের প্রতি জনগণের [বিস্তারিত...]

হাক্কানী বর্ষের প্রথম মাস অগ্রহায়ণ

বাঙালির হাজার বছরের ঐতিহ্য পুনঃপ্রতিষ্ঠার মহান পদক্ষেপ সংলাপ ॥ রাজনীতির জটিল কুটিল আবর্তে পড়ে ইতিহাস ঐতিহ্য তার গতি প্রকৃতি হারায়। প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে এগিয়ে চলা জাতি স্মৃতি বিস্মৃত হয়ে অনেক ক্ষেত্রেই ভুলতে বসে তার ঐতিহ্যকে। ক্ষমতার দ্বান্দ্বিকতায় বিদ্বেষের আগুনে পুড়ে নিরীহ মানুষ হারিয়ে ফেলে অনেক কিছূ। তবু থেমে থাকে না কিছুই। এরই মাঝে কেউ কেউ শেকড়ের সন্ধানে লেগে থাকে নিরন্তর। হারাতে দেয় না সবকিছুকে। ধারণ- লালন-পালন করে চলে জাতিসত্ত্বার ঐতিহ্যের আর আনন্দের বিষয়গুলোকে। পাকা ধানের মউ মউ গন্ধে বিমোহিত দশদিগন্ত। শীতের পরশ আলতো করে গায়ে মাখছে প্রকৃতি। কমছে তাপমাত্রা, কুয়াশার চাঁদরে মোড়ানো প্রত্যুষের গ্রামবাংলা। ভোরের কোমল রোদ, শিশির ভেজা ঘাসের ডগায় যেন মুক্তোর মেলা। ঝলমল  শিশিরের হাসি, লকলকে লাউয়ের ডগায় তারুণ্যের সতেজতা - কানে কানে বলে যায়, এসেছে অগ্রহায়ণ। শৈত্যপ্রবাহও নেই, খরতাপও নেই। মৃদু হিমস্পর্শ প্রাণে শিহরণ জাগায়। উদাসীন বাতাসে ওড়ে ঝরাপাতা। সন্ধ্যায় বাঁশঝাড়ে [বিস্তারিত...]

সময়ের সাফ কথা....

‘প্রতি মসজিদে মিনারে জনপদে অগ্রহায়ণ আবার হোক প্রেরণার প্রপাতে আপ্লুত’ শাহ্ শেখ মজলিশ ফুয়াদ ॥ মসজিদে মসজিদে, মিনারে মিনারে বঙ্গের প্রতি জনপদ প্রতিটি বাড়ি ঘরের কিনারে কিনারে আবার অগ্রহায়ণ হোক প্রেরণার প্রপাতে প্রপাতে আপ্লুত।’ -‘অগ্রহায়ণ’ নিয়ে অধ্যক্ষ শেখ আবু হামেদ কর্তৃক ১৯৯০ খ্রীষ্টাব্দের বিভিন্ন সময়ে (১৩৯৬ বঙ্গাব্দের) লেখা ও কবিতাগুলো বেশ উদ্দীপনাময়ী ও প্রেরণাদায়ক। ‘অঙ্গে আমার বঙ্গ রক্ত বহে ’- নামে কবিতা ও কবিতাগ্রন্থের লেখক তিনি। বঙ্গবন্ধুর হাতেগড়া এবং স্বাধীনতা সংগ্রামে নেতৃত্বদানকারী রাজনৈতিক সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ তখন রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার বাইরে ছিল এবং বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের প্রতিনিধিরা এবং এই হত্যার সুফল ভোগকারীরা ক্ষমতার মসনদে ছিল বলেই অবস্থা সচেতন মানুষদের কাছে সহজেই অনুমেয়। ওই সময় গ্রন্থটিতে বঙ্গ, বাঙালি, বাংলা, বঙ্গবন্ধু, বাংলা নববর্ষ, বাঙালির চেতনা, বাঙালির বিজয় ও স্বাধীনতা দিবস, নবান্ন প্রসঙ্গে তাঁর লেখাগুলোর তাৎপর্য গভীর অনুসন্ধানের দাবি রাখে। উল্লেখ্য যে, দেশের প্রখ্যাত সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও কবি - [বিস্তারিত...]

সুদানে রাশিয়ার নৌঘাঁটি নির্মাণে প্রেসিডেন্ট পুতিনের অনুমোদন

সুদানে রাশিয়ার নৌঘাঁটি নির্মাণে  প্রেসিডেন্ট পুতিনের অনুমোদন সংলাপ ॥ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন সুদানে একটি নৌঘাঁটি নির্মাণের লক্ষ্যে দেশটির সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরের পরিকল্পনা এগিয়ে নেয়ার জন্য রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছেন। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সম্ভাব্য এ চুক্তির খসড়া অনুমোদনের জন্য প্রেসিডেন্ট পুতিনের কাছে হস্তান্তর করলে সম্প্রতি তিনি এ নির্দেশ দেন। রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মিখাইল মিশুস্তিন সুদানের সঙ্গে সম্ভাব্য সামরিক চুক্তির খসড়া ভ্লাদিমির পুতিনের কাছে হস্তান্তর করেন। সুদান সম্প্রতি দেশটিতে একটি নৌ সরবরাহ ঘাঁটি স্থাপনের রুশ প্রস্তাব গ্রহণ করে। সমুদ্রে চলাচলকারী রুশ জাহাজগুলোর মেরামত ও কারিগরি পৃষ্ঠপোষকতা প্রদান এবং এসব জাহাজের নাবিকদের বিশ্রাম নেয়ার লক্ষ্যে রাশিয়ার এ ধরনের ঘাঁটি প্রয়োজন বলে মস্কো খার্তুমকে জানিয়েছে। চুক্তির খসড়ায় বলা হয়েছে, নৌ সামরিক ঘাঁটি নির্মাণের জন্য সুদান রাশিয়াকে বিনামূল্যে জমি সরবরাহ করবে। অন্যদিকে আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাসহ ওই ঘাঁটির নিরাপত্তা রক্ষার সব সামরিক সরঞ্জাম ও সমরাস্ত্র সুদান সরকারের নিয়ন্ত্রণে দিয়ে দেবে রাশিয়া। চুক্তির খসড়ায় আরো বলা হয়েছে, রাশিয়ার নৌ ঘাঁটিটি [বিস্তারিত...]

ইসরাইলকে স্বীকৃতি দিতে চাপে পাকিস্তান: ইমরান খান

ইসরাইলকে স্বীকৃতি দিতে  চাপে পাকিস্তান: ইমরান খান সংলাপ ॥ ইহুদিবাদী ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেয়ার জন্য পাকিস্তানের ওপর চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। একইসঙ্গে তিনি দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেছেন, ‘ইহুদিবাদীদের’ সঙ্গে ইসলামাবাদ কখনোই সম্পর্ক স্থাপন করবে না। পাকিস্তানের একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ তথ্য ফাঁস করেন। ইমরান খান বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইন ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেয়ার পর ইসলামাবাদকেও একই কাজ করতে চাপ দেয়া হচ্ছে, কিন্তু তার সরকার এখন পর্যন্ত সে চাপ উপেক্ষা করে এসেছে। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, “এমন একটি সমঝোতা যা ফিলিস্তিনিদের সন্তুষ্ট করবে তা অর্জিত হওয়ার আগ পর্যন্ত আমি কোনো অবস্থাতেই ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেয়ার কথা ভাবতেও রাজি নই।” কোন কোন দেশের পক্ষ থেকে এমন চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে সে সংক্রান্ত প্রশ্নের জবাবে ইমরান খান সুনির্দিষ্ট কোনো দেশের নাম বলতে অস্বীকৃতি জানান। তিনি বলেন, ‘কিছু কথা আছে যা আমরা বলতে পারি না। তাদের সঙ্গে আমাদের ভালো সম্পর্ক বিদ্যমান।’ পাকিস্তানের জাতির [বিস্তারিত...]

পশ্চিমতীরে ইহুদি বসতি সমর্থন করছে আমিরাত: হামাস

পশ্চিমতীরে ইহুদি বসতি সমর্থন করছে আমিরাত: হামাস সংলাপ ॥ ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস অভিযোগ করেছে, অধিকৃত পশ্চিম তীরে ইহুদিবাদী ইসরাইল যে অবৈধ বসতি বিস্তারের পরিকল্পনা নিয়েছে তার প্রতি সমর্থন দিচ্ছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। হামাসের অন্যতম মুখপাত্র হাজেম কাসেম বলেন, সম্প্রতি ইহুদি বসতি নির্মাণ পরিষদের প্রধানকে আবুধাবি অভ্যর্থনা জানিয়েছে, তার সঙ্গে বৈঠক ও অর্থনৈতিক চুক্তি করেছে। ইয়েমেনের আরবি ভাষার টেলিভিশন চ্যানেলের এ খবর দিয়েছে। ইহুদি বসতি নির্মাণ পরিষদের প্রধান হিসেবে মির দোগান প্রকাশ্যে অবৈধ বসতি বিস্তারের পক্ষে কথা বলে আসছেন। তিনি সম্প্রতি সংযুক্ত আরব আমিরাত সফর করেছেন এবং দেশটির সঙ্গে অর্থনৈতিক চুক্তি করেছেন। এ বিষয়টিকে হামাস ইহুদিবাদী ইসরাইলের অবৈধ বসতি নির্মাণ প্রকল্পের প্রতি আবুধাবির সরাসরি সমর্থন বলে মনে করছে। এর আগে, আরব লীগের পক্ষ থেকে ফিলিস্তিনি ইহুদি বসতি নির্মাণের বিরুদ্ধে যত প্রস্তাব পাস করা হয়েছে- এই চুক্তির মধ্যদিয়ে আমিরাত তার সবগুলো লঙ্ঘন করেছে বলে মন্তব্য করেন হামাসের এ মুখপাত্র। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক অঙ্গনের বহু দেশ এবং কোম্পানি [বিস্তারিত...]

এই সপ্তাহে….

* সূফী সাধক আনোয়ারুল হক

* সূফী সাধক আনোয়ারুল হক-এঁর বাণী তাৎপর্য অন্বেষণে –

* সত্য প্রতিষ্ঠায় স্বেচ্ছাশ্রম যাহা নিত্য তাহাই সত্য – ২৩

* মৃত্যু বলে কিছু নেই, আছে রূপান্তর..

* অনুভূতি-উপলব্ধি যে করে লালন সোজা পথে হয় তার চলন

 

সত্য সন্ধানে সংলাপ