২০২০ সাল শেষ হওয়ার আগেই ‘নর্ড স্ট্রিম-২’ চালু করব: রাশিয়া

সংলাপ ॥ রাশিয়া বলেছে, দেশটি আগামী বছর শেষ হওয়ার আগেই জার্মানি পর্যন্ত ‘নর্ড স্ট্রিম-২’ পাইপলাইন চালু করবে। রাশিয়া থেকে জার্মানিতে গ্যাস সরবরাহ করার জন্য এই বিশাল প্রজেক্টের কাজ মাঝামাঝি থাকা অবস্থায় গত সপ্তাহে আমেরিকা এই প্রকল্পের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। এ ফলে পাইপলাইনের শেষ অংশের কাজ বন্ধ করতে বাধ্য হয় এটির ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান ‘অলসিস’। রাশিয়ার জ্বালানীমন্ত্রী আলেক্সান্ডার নোভাক বলেছেন, মার্কিন নিষেধাজ্ঞা অকার্যকর করে দেয়ার জন্য রাশিয়া নিজেই পাইপলাইনের বাকি নির্মাণকাজ সমাপ্ত করতে পারবে এবং ২০২০ সাল শেষ হওয়ার আগেই এ প্রকল্প চালু করবে মস্কো। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত ২০ ডিসেম্বর ৭৩৮ বিলিয়ন ডলারের প্রতিরক্ষা আইন- ‘ন্যাশনাল ডিফেন্স অথোরাইজেশন অ্যাক্ট বা এনডিএএ’তে স্বাক্ষর করেন। ‘নর্ড স্ট্রিম-২’ পাইপলাইনকে ওই আইনের অন্তর্ভুক্ত করা হয়। এতে বলা হয়, ওই প্রজেক্টে জড়িত কোম্পানিসমূহ ও ব্যক্তিরা এ নিষেধাজ্ঞার আওতায় আসবে। ট্রাম্পের ওই পদক্ষেপের পর সুইস-ডাচ পাইপলাইন বসানোর কোম্পানি ‘অলসিস’ এই প্রকল্পের কাজ বন্ধ করে দেয়। তবে ৯.৫ বিলিয়ন ইউরোর এ প্রজেক্টের ৯০ শতাংশ কাজ এরইমধ্যে শেষ হয়েছে। রাশিয়ার গ্যাস জার্মানিতে নিয়ে যাওয়ার জন্য বাল্টিক সাগরের তলদেশ দিয়ে এই পাইপলাইন টেনে নেয়া হয়েছে।

এই পাইপলাইনের সমর্থকরা বলছেন, এটি চালু হলে ইউরোপীয় দেশগুলো কম দামে গ্যাস সংগ্রহের সুযোগ পাবে। তবে সমালোচকরা বলছেন, এর মাধ্যমে রাশিয়া ইউরোপের ওপর নিজের রাজনৈতিক প্রভাব বিস্তার করতে চায়। আমেরিকা মূলত রাজনৈতিক দিকটি বিবেচনা করে এই প্রকল্পের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।