বিশ্ব ঐতিহ্যের মর্যাদা পেয়েছে ব্যাবিলন শহর

babilon

সংলাপ ॥ বিশ্ব ঐতিহ্যের মর্যাদা পেয়েছে ব্যাবিলন শহর; স্বাগত জানাল ইরাক সরকার।ইরাকের প্রাচীন শহর ব্যাবিলনকে বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ হিসেবে ঘোষণা করেছে ইউনেস্কো। ইরাকের সাবেক প্রেসিডেন্ট সাদ্দামের স্বেচ্ছাচারিতার কারণে ১৯৮০’র দশকে শহরটি বিশ্ব ঐতিহ্যের মর্যাদা হারিয়েছিল। ইউনেস্কো ওই তালিকা থেকে তা বাদ দিয়েছিল। সাদ্দাম সেখানে তার জন্য প্রাসাদ নির্মাণ করেছিল। ব্যাবিলন হচ্ছে মেসোপটেমিয়ার প্রাচীন শহর। এটি প্রায় চার হাজার বছরের পুরনো। ব্যাবিলনের ঝুলন্ত উদ্যান প্রাচীন বিশ্বের সপ্ত আশ্চর্যের মধ্যে অন্যতম ছিল।

নতুন যে স্থানগুলো এই মর্যাদা পেতে পারে তা নির্ধারণের জন্য জাতিসংঘের বিশ্ব ঐতিহ্য কমিটি সম্প্রতি আজারবাইজানের রাজধানী বাকুতে বৈঠকে মিলিত হয়েছিল। বিশ্ব মানবতার জন্য গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে বিবেচিত স্থান বা স্থাপনাকে এই মর্যাদায় ভূষিত করা হয়। ঘোষণার পর ওই স্থানগুলোকে আন্তর্জাতিক চুক্তির অধীনে সুরক্ষা দেওয়া হয়। ব্যাবিলনকে এই মর্যাদা দেওয়ার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে ইরাক সরকার।

তবে ব্যাবিলন এখনও অত্যন্ত হুমকির মধ্যে রয়েছে জানিয়ে সতর্ক করেছে ইউনেস্কো। তারা বলেছে, ২০২০ সালের মার্চের মধ্যে ব্যাবিলন থেকে সব ধরণের অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে ফেলতে হবে।

অপরদিকে, ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্য কমিটি ইরানের হিরকানি বনকে বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকাভুক্ত করেছে।